নিউজটি শেয়ার করুন

দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম ভরিতে কমেছে ১৫১৬ টাকা

সিপ্লাস ডেস্ক: দেশের বাজারে সব ধরনের স্বর্ণের দাম ভরিতে এক হাজার ৫১৬ দশমিক ৩২ টাকা কমেছে। ২২ ক্যারেটের ভরি প্রতি সর্বোচ্চ দাম পড়বে ৭১ হাজার ১৫০ দশমিক ৩২ টাকা।

বুধবার (৩ মার্চ) থেকে নতুন দামে বিক্রি হচ্ছে অলংকার তৈরির এ ধাতু।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির (বাজুস) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বর্ণের দাম কমানোর খবর গণমাধ্যমে জানানো হয়েছে। সবশেষ স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছিল চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি।

বাজুস নির্ধারিত নতুন মূল্য তালিকায় দেখা গেছে, ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৭১ হাজার ১৫০ দশমিক ৩২ টাকা। মঙ্গলবার পর্যন্ত এ মানের স্বর্ণের বাজার দর ছিল ৭২ হাজার ৬৬৬ দশমিক ৭২ টাকা। ভরিতে দাম কমেছে এক হাজার ৫১৬ দশমিক ৩২ টাকা।

২১ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম ধরা হয়েছে ৬৮ হাজার এক দশমিক ১২ টাকা। মঙ্গলবার পর্যন্ত দাম ছিল ৬৯ হাজার ৫১৭ দশমিক ৪৪ টাকা। দাম কমেছে এক হাজার ৫১৬ দশমিক ৩২ টাকা।

একইভাবে ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম পড়বে ৫৯ হাজার ২৫৩ দশমিক ১২ টাকা। আগে দাম ছিল ৬০ হাজার ৭৬৯ দশমিক ৪৪ টাকা। ভরিতে কমেছে এক হাজার ৫১৬ দশমিক ৩২ টাকা।

সনাতন পদ্ধতিতে স্বর্ণের প্রতি ভরির দাম ধরা হয়েছে ৪৮ হাজার ৯৩০ দশমিক ৪৮ টাকা। মঙ্গলবার পর্যন্ত দাম ছিল ৫০ হাজার ৪৪৬ দশমিক ৮০ টাকা। প্রতি ভরির দাম কমেছে এক হাজার ৫১৬ দশমিক ৩২ টাকা। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে রূপার দাম।

বাজুস নির্ধারিত নতুন মূল্য তালিকায় ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম এক হাজার ৫১৬ টাকা, ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি এক হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি এক হাজার ২২৫ টাকা ও সনাতন পদ্ধতিতে প্রতি ভরির দাম ৯৩৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

দেশের বাজারে এতদিন সনাতন পদ্ধতিতে রূপার ভরি বিক্রি হতো ৯৩৩ টাকায়। নতুন করে রূপার ক্যারেট শ্রেণি বিন্যাস করে দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে বাজুস।

বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত সব জুয়েলারি ব্যবসায়ীকে বাজুস নির্ধারিত মূল্য তালিকায় বিক্রির অনুরোধ করা হলো।