নিউজটি শেয়ার করুন

তালেবানের মন্ত্রিসভায় নারী থাকবে না

সিপ্লাস ডেস্ক: আগামী দুই দিনের মধ্যে আফগানিস্তানের তালেবানের সরকার গঠিত হতে যাচ্ছে বলে খবর দিয়েছেন এই গোষ্ঠীর শীর্ষস্থানীয় নেতা শের মোহাম্মাদ আব্বাস স্তানাকজাই।

কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবানের অন্যতম এই আলোচক বুধবার বিবিসিকে বলেছেন, আফগানিস্তানের নয়া সরকার হবে অংশগ্রহণমূলক যেখানে নারীদের অংশগ্রহণ থাকবে। তবে তালেবান মন্ত্রিসভায় নারীদের উপস্থিতি থাকবে না বরং পরবর্তী পর্যায়ের কর্মকর্তাদের তালিকায় তাদের নাম থাকবে। কিন্তু যেসব নারী মার্কিন সমর্থিত সাবেক সরকারকে সহযোগিতা করেছে তাদেরকে কোনো দায়িত্ব দেয়া হবে না।

তালেবানের এই শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেন, হিজাব পরিধানের শর্তে নারীরা চাকরি করার সুযোগ পাবেন এবং তাদেরকে আফগানিস্তানের আইন মেনে চলতে হবে। তালেবান সরকারের মন্ত্রিসভায় পূর্ববর্তী সরকারের কোনো কর্মকর্তা উপস্থিত থাকবেন না।

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরও আগামী দুই দিনের মধ্যে আবার খুলে দেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন আব্বাস স্তানাকজাই। তিনি বলেন, পাসপোর্ট ও ভিসা থাকলে যে কাউকে এই বিমানবন্দর দিয়ে দেশত্যাগের অনুমতি দেয়া হবে।

তালেবানের আসন্ন সরকারে আফগানিস্তানের সকল গোত্রের প্রতিনিধিত্ব থাকবে বলেও আশ্বাস দেন তালেবানের এই নেতা। তবে তিনি বলেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই ও গনি সরকারের প্রধান আলোচক আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহকে তালেবান সরকারের কোনো দায়িত্ব দেয়া হবে না।

তালেবানের কাতার দপ্তরের উপপ্রধান স্তানাকজাই বলেন, সাবেক সরকারের মন্ত্রী ও কর্মকর্তাদের জীবনের জন্য কোনো হুমকি আফগানিস্তানে নেই। একইসঙ্গে তারা দেশত্যাগ করতে চাইলেও বাধা দেয়া হবে না।

গতমাসে মাত্র ১১ দিনের ব্যবধানে গোটা আফগানিস্তানের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে তালেবান। গত ১৫ আগস্ট তাদের হাতে রাজধানী কাবুলের পতন হয়। এর ফলে ২০ বছরের দখলদারিত্বের অবসান ঘটিয়ে অবমাননাকর পরিস্থিতিতে আফগানিস্তান ত্যাগ করতে বাধ্য হয় আমেরিকা।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments