নিউজটি শেয়ার করুন

জুবলী রোডে গাড়ির প্রতিবন্ধকতা গাড়ি: যানজটই নিত্যদিনের সঙ্গী

মো: মহিন উদ্দীন: চট্টগ্রাম নগরীর অন্যতম ব্যস্থতম সড়ক হিসেবে পরিচিত জুবলী রোড। এ সড়কে যানজট যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। ফুটপাতে দোকানদারদের মালামাল রেখে সংকীর্ণ করেছে রাস্তা। আবার এ রাস্তায় গাড়ি অবৈধভাবে পার্কিং করায় সৃষ্ট হয় প্রতিবন্ধকতা।

যার ফলে যানজটই নিত্যদিনের সঙ্গী হিসেবে পরিণত হয়েছে ব্যস্থতম এ সড়কে।

নানা অপরিহার্য পণ্যের প্রাণ কেন্দ্র হওয়ায় চট্টগ্রাম জেলার ১৪ উপজেলার ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ পর্যন্ত আসেন তাদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনার জন্য। তবে উত্তর জেলার বেশিরভাগ মানুষ এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে।

ফটিকছড়ির বিবিরহাট থেকে আসা শওকত হোসেন করিম, রানিরহাট থেকে রোকন, সীতাকুন্ড থেকে আসা রাফি জানান, কাজির দেউড়ি থেকে নিউ মার্কেট যেতে শুধু জ্যাম আর জ্যাম। মনে হয় এক একটি চেকপোস্ট।

জুবলী রোড, কাজীর দেউরি, এনায়েত বাজার, তিন পুলের মাথা সড়কের দুই পাশে যত্রেতত্রে অবৈধভাবে গাড়ি পার্কিং এবং ফুটপাতের ওপর অবৈধ ভাসমান টং দোকান। অবৈধভাবে রাস্তা দখল করে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মালামাল রেখে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করার অন্যতম কারণ বলে মনে করেন সচেতন মহল।

জুবলী রোড বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও এনায়েত বাজার মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো: আবদুল হালিম সেলিম সিপ্লাসকে বলেন, দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ নানা ধরণের মালামাল কেনার জন্য এনায়েত বাজার থেকে নিউ মার্কেট পর্যন্ত ভিড় জমান। অনেকে নিজেদের গাড়ী নিয়ে আসে, আবার কেউ ভ্যান গাড়ি কিংবা পিকআপ, রিকশা, মিনি ট্রাকে মালামাল তুলে। হয় তো তার জন্য কিছুটা যানজট হয়। কেননা আপনি একটা গাড়ি নিয়ে আসছেন মালামাল কেনার জন্য। এখন কি আপনার গাড়ীকে তাড়িয়ে দিতে পারব। নিশ্চয় তাড়াতে পারব না। তবে হাতেগুনা কয়েকটা টং দোকান ছাড়া আর কোন ভাসমান দোকান নেই।

কোতোয়ালী থানার টিআই পুলক চাকমা সিপ্লাসকে বলেন, জন গুরুত্বপূর্ণ ও ব্যস্থতম রোড হিসেবে পরিচিত হওয়ায় প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ বিভিন্ন্ প্রকার দ্রব্য সামগ্রী কেনার জন্য ছুটে আসেন। কিন্তু মার্কেট সমুহ পার্কিংয়ের কোন জায়গা না রাখায় ক্রেতারা রোডে উপর অবৈধভাবে গাড়ি পার্কিং করে যানজট সৃষ্টি হয়। তারপরও আমরা প্রতিদিন ৪/৫ টি মামলা দিই। এরমধ্যে জনবল সংকট থাকায় রোডে যানজট নিরসন করতে কিছুটা হিমশিম খেতে হয়।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মারুফা বেগম নেলী সিপ্লাসকে বলেন, আমরা সব সময় অভিযান পরিচালনা করি না। তবে সময় করে জুবলী রোডে অভিযান চালাব।