নিউজটি শেয়ার করুন

খুনের আসামি উধাওয়ের ঘটনায় চট্টগ্রাম কারাগারের জেলার প্রত্যাহার

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার

সিপ্লাস প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে হত্যা মামলার আসামি নিখোঁজের ঘটনায় জেলার রফিকুল ইসলামকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এছাড়া দুই কারারক্ষীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে এবং একজনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে।

রোববার (৭ মার্চ) চট্টগ্রাম বিভাগীয় ডিআইজি প্রিজন্স একে এম ফজলুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বন্দি নিখোঁজের ঘটনায় খুলনা বিভাগীয় ডিআইজি প্রিজন্স ছগীর মিয়াকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ফজলুল হক জানান, কারারক্ষী নাজিম উদ্দিন ও সহকারী প্রধান কারারক্ষী ইউনুস মিয়া সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন। সহকারী প্রধান কারারক্ষী কামাল হায়দারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে। আর জেলার রফিকুল ইসলামকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

শনিবার (৬ মার্চ) সকালে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নিখোঁজ হন ফরহাদ হোসেন রুবেল নামে হত্যা মামলার এক আসামি।নিয়মিত গণনার সময় ওই বন্দির অনুপস্থিতির বিষয়টি কারা কর্তৃপক্ষের নজরে আসে। নিখোঁজের পরপরই কারাগারে পাগলা ঘণ্টা বাজানো হয়।

কোতোয়ালি থানায় এ বিষয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, শনিবার সকাল ছয়টা থেকে বন্দি রুবেলকে কারাগারে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. শফিকুল ইসলাম খান কোতোয়ালি থানায় জিডি করেছেন।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সদরঘাট থানায় দায়ের হওয়া মামলায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের অন্তর্বর্তীকালীন হাজতের পরোয়ানা মোতাবেক গত ৯ ফেব্রুয়ারি রুবেলকে কারাগারে পাঠানো হয়। শনিবার (৬ মার্চ) সকাল ৬টা থেকে কারা অভ্যন্তরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যাচ্ছে না। তার সন্ধানে কারা অভ্যন্তরে তল্লাশি চলছে।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমা জানান, বন্দি রুবেল কারাগারের ১৫ নম্বর কর্ণফুলী ভবনের ‘পানিশমেন্ট’ ওয়ার্ডে থাকতেন।