নিউজটি শেয়ার করুন

কোটি টাকার তক্ষকের জন্য ভূজপুরে এসে প্রাণ গেল ঢাকার হেলালের

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: তক্ষকের জন্য ঢাকার মুগদা থানার মদিনাবাগ এলাকা থেকে চট্টগ্রামের ভূজপুরে এসে প্রাণ দিতে হলো হেলাল উদ্দিনকে।

গত বছরের ২৩ নভেম্বর তক্ষকের কথা বলে ঢাকার মুগদা থানার মদিনাবাগ এলাকার বাসিন্দা মো. হেলাল উদ্দিনকে অপহরণকারীরা চট্টগ্রামের ভূজপুরের গহীন জঙ্গলে নিয়ে যান। দামে বনিবনা না হওয়াতে হেলালকে মেরে জঙ্গলের ভিতরে প্রায় ১২/১৫ ফুটে গর্তে লাশ ফেলে দেয় অপহরণকারী দলের সদস্যরা।

২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর ভূজপুর থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন হেলালের দ্বিতীয় স্ত্রী কানিজ ফাতেমা পিংকি। মামলার কোনো অগ্রগতি না হওয়াতে মামলাটি গেলো মার্চে পিবিআইতে হস্তান্তর করা হয়।

পিবিআই পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মামলাটি তাদের কাছে স্থানান্তরের পর পিবিআই তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে হেলালের মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে ছদ্মবেশে অপহরণকারী দলের সদস্যদের বিল্লালকে ধরতে সক্ষম হয়। তার দেখানো মতে লাশের সন্ধান পায় পিবিআই।

পিবিআই এর সদস্যরা ঘটনাস্থল এসে দেখতে পাই ১৫ ফুটের গর্তে নিচে সে লাশ উপায়ান্তর না দেখে গতকাল ১৮ নভেম্বর ফিরে গেলেও আজ ১৯ নভেম্বর দুপুরে এসে লাশ উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে। রাতে গলিত লাশ উদ্ধার করে পিবিআই।