নিউজটি শেয়ার করুন

করোনায় সিকদার গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যু

সিপ্লাস ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিকদার গ্রুপের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা জয়নুল হক সিকদার মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি বেসরকারি ন্যাশনাল ব্যাংকেরও চেয়ারম্যান।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি)দুবাইয়ের সৌদি জার্মান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে তিনি এ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার লাশ দেশে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

ন্যাশনাল ব্যাংকের অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর এ এস এম বুলবুল এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে সৌদি-জার্মান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাংলাদেশ সময় বুধবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে তিনি মারা যান। চেয়ারম্যান স্যারের লাশ দেশে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

সিকদার গ্রুপের পরিচালক সৈয়দ কামরুল ইসলাম জানান, এক সপ্তাহ আগে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, সিকদার গ্রুপ দেশের বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। জয়নুল হক সিকদার প্রথম প্রজন্মের ব্যাংক ন্যাশনাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান। সিকদার গ্রুপ ও তার ছেলেদের ব্যবসা–বাণিজ্য দেশের পাশাপাশি বহির্বিশ্বেও ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায়ও সিকদার পরিবারের সম্পদ ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে। ব্যাংক, বিমা, বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, আবাসন, নির্মাণ, হোটেল, পর্যটন, এভিয়েশনসহ বিভিন্ন খাতে গ্রুপটির ব্যবসা রয়েছে। পরিবারটির সবচেয়ে বড় ব্যবসা এখন বিদ্যুৎ খাতের পাওয়ার প্যাক হোল্ডিং। পাওয়ার প্যাক হোল্ডিংয়ের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রে সিকদার রয়েছে একাধিক কোম্পানি ও বিপুল বিনিয়োগ। জয়নুল হক সিকদারের মেয়ে পারভীন হক সিকদার আওয়ামী লীগ থেকে সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ।

এদিকে জয়নুল হক সিকদারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক শোকবার্তায় বলা হয়, সিকদার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট সমাজসেবক, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল হক সিকদারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।