নিউজটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর বাধায় রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে প্রত্যাবাসন হচ্ছে না

সিপ্লাস ডেস্ক: আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর বাধার কারণে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। তাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে দিতে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা করতে চীনের পাশাপাশি জাপানও আগ্রহ দেখিয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির মিট দ্যা রিপোর্টার্স অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

চুক্তির পরও রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব না হওয়ায় ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের পরিকল্পনা শুরু করে বাংলাদেশ। তৈরি করা হয় উন্নত নতুন অবকাঠামো। তবে সেটাও আটকে আছে জাতিসংঘ, ইউএনএইচসিআরের মতো আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর বাধার কারণে। এসব আপত্তি কাটিয়ে প্রত্যাবাসনে দৃঢ় অবস্থানের কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেন, আন্তর্জাতিক এনজিও এবং লোকাল এনজিওসহ বহু এনজিও রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে যেতে বারবার বাধা দিচ্ছেন। উনারা মনে করেন, এটা একটা আইসোলেটেড দ্বীপ। তারা এখনো মনে করে ‘ভাসান’ মানে ভেসে যাবেন। কবে নেব কিন্তু আমরা তাদেরকে সেখানে নেবই। আমরা বড় করে ঘোষণা দিয়ে তাদের সেখানে নেব না।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন তিস্তা নিয়ে বলেন, ‘পানি বিষয়ে একটি টেকনিক্যাল কমিটি আগামী মাসে ভারতে যাবে। ভারতে গিয়ে তারা এগুলো আলাপ করবেন।’

নতুন মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে বিনিয়োগ, জলবায়ু ও অভিবাসন ইস্যুতে বাংলাদেশের ইতিবাচক আলোচনা গতি পাবে বলেও মনে করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।